গ্রেপ্তার প্রেমিকা। গুলিতে প্রেমিকের মৃত্যুর ঘটনায় চাঞ্চল্য মেদিনীপুরে। ঘটনার মোড় অন্য দিকে। ক্লিক করে পড়ুন

নিজস্ব সংবাদদাতা,পশ্চিম মেদিনীপুরঃ রবিবারের ঘটনায়  কাকলী মজুমদারকে গ্রেপ্তার করলো কোতয়ালী থানার পুলিশ।মৃতের পরিবারের অভিযোগে গ্রেপ্তার। তাকে আজ মেদিনীপুর আদালতে তোলা হয়।

রবিবার বোলপুরের সনসৎ গ্রামের যুবক হাসানু্র চৌধুরীর মৃতদেহ উদ্ধার হয় পশ্চিম মেদিনীপুরের কোতয়ালী থানার বরিশাল কলোনীর কাকলী মজুমদারের বাড়িতে। গুলিবিদ্ধ আবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার হাতের নিচ থেকে একটি পিস্তল উদ্ধার করেছে পুলিশ, উদ্ধার হয়েছে একটি ব্যাগ।

প্রাথমিকভাবে পুলিশ জানতে পেরেছে, বছর খানেক আগে ফেসবুকে আলাপ হয় কাকলির সঙ্গে হাসানুরের। গড়ে উঠে প্রেমের সম্পর্ক। কিন্তু কোন এক কারণে তাদের সম্পর্কের অবনতি হয়।মাসখানেক কোন যোগাযোগ রাখতে চাইনি কাকলি।হাসানুর কাকলির ঠিকানা জোগাড় করে ক্যুরিয়ার ম্যান পরিচয় দিয়ে শনিবার কাকলির বাড়ি পৌঁছে যায় । সেই সময় কাকলি না থাকায় বিকেল ফের আসে।একটি খাম দিয়ে চলে যায়। তাতে একটি চিঠি ছিল। তারপর আবার রবিবার দুপুরে কাকলির বাড়িতে আসে হাসানু্র। হঠাৎ গুলির শব্দে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে।গুলিবিদ্ধ আবস্থায় তার মৃতদেহ বাড়ির উঠানে পড়ে থাকতে দেখা যায়। ঘটনাস্থলে আসে কোতয়ালী থানার পুলিশ। পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠায়।

হাসানু্রের পরিবার কাকলি ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে খুনের অভিযোগ করে কোতয়ালী থানার। এরপরই পুলিশ কাকলি মজুমদারকে গ্রেপ্তার করে। পাশাপাশি ঘটনার আসল কারণ জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

fb প্রতি মুহূর্তে ‘হাইলাইস বেঙ্গল’ এর নিউজ আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ Like  করুন।