দুর্ঘটনায় একটি পা বাদ গেছে। তবুও এভারেস্ট জয়। ক্লিক করে দেখুন অরুনিমার কঠিন লড়াইয়ের কাহিনী

নিউজ ডেস্কঃ   অদম্য জেদ আর ইচ্ছাশক্তিই যে সাফল্যের একমাত্র চাবিকাঠি তা প্রমান করেছেন অরুণিমা সিংহ। দুর্ঘটনায় একটি পা বাদ যায়। তাতে কি? অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখিয়েছেন তিনি। যেখানে আর পাঁচজন হাল ছেড়ে দেন সেখানে মনের জোরে জয় করেছেন এভারেস্ট। শুধু তাই নয়, প্রন্থেটিক পা নিয়ে বিশ্বের প্রথম মহিলা এভারেস্ট জয়ী কৃতিত্ব অর্জন করেছেন।

উত্তরপ্রদেশের আম্বেদকর নগরের অরুণিমা সিংহ। ছোট থেকেই অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছেন। কিন্তু তার জন্য জীবনের এতবড় মূল্য দিতে হবে তা কেউ ভাবে নি। বছর পাঁচ আগে ট্রেনের কামরায় ওঠা দুষ্কৃতিদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান। দুষ্কৃতিরা তাকে ট্রেন থেকে ফেলে দেয়। ভাগ্যের জোরে প্রানে বাঁচলেও ট্রেনর  চাকায় তার বাঁ পা কেটে বাদ যায়। কিন্তু তাতেও থেমে থাকেননি অরুণিমা। সেই প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে জাতীয় স্তরের ভলিবল খেলোয়াড় হিসাবে নিজেকে মেলে ধরেন। এবং প্রমান করেন কোনও কিছুই অসম্ভব নয়।

স্বপ্ন তার আকাশ ছোঁয়া। এভারেস্ট জয়ের স্বপ্ন নিয়ে পর্বতারোহণের প্রশিক্ষণ নেওয়া শুরু করেন। প্রচুর কষ্ট হলেও পিছন ফিরে তাকায়নি। স্বপ্নের লক্ষে এগিয়ে চলেন। বহু বাধা বিপত্তি পেরিয়ে অবশেষে ২০১৩ সালের ২১ মে এভারেস্টের চুড়ায় ভারতের পতাকা উড়িয়েছিলেন। এভারেস্ট ছাড়াও আরও ৬ টি শৃঙ্গ জয় করেছেন তিনি। ‘বর্ন এগেন অন দা মাউন্টেন’ নামে একটি বই লিখেছেন। ইতিমধ্যেই পেয়েছেন পদ্মশ্রী সম্মান। কঠিন প্রতিবন্ধকতাকে হেলায় হারিয়ে আজ জীবন সংগ্রামে জয়ী অরুনিমা। আগামী দিনে আরও এগিয়ে যেতে চান তিনি।

**প্রতি মুহূর্তে ‘হাইলাইস বেঙ্গল’ এর নিউজ আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ Like  করুন।

arunima-padma-shri
রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে পদ্মশ্রী সম্মান নিচ্ছেন