বর্ধমানে পরকীয়ার জেরে খুন। গ্রেপ্তার স্ত্রী ও তার প্রেমিক। ক্লিক করে দেখুন।

পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে খুন হওয়া যুবকের মৃত্যুর কিনারা করল  পুলিশ। পরকীয়ার জেরে এই খুন বলে পুলিশ জানতে পেরেছে ।

পরকীয়ার জেরে স্বামীকে খুন করল স্ত্রী ও তার প্রেমিক। গলা কেটে , শ্বাসরোধ করে খুন বলে জানালেন পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় ।
মঙ্গলবার সকালে পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রাম এর জামতারা গ্রামে পেশায় লটারি বিক্রেতা মধুসূদন বাউড়ি (২৮) নামে এক যুবকের গলার নলি কাটা অবস্থায় দেহ উদ্ধার হয়। পুলিশ দেহ উদ্ধারের পর তদন্তে নামে। এরপরই মৃতের স্ত্রী প্রীতি বাউরি ও স্থানীয় যুবক মঙ্গল বাউরীকে আটক করে। পরে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাদেরকে গ্রেফতার করে আজ বর্ধমান আদালতে তোলা হয়।
জানা গেছে প্রীতি বাউরী সাথে তার পাশের বাড়ির যুবক পেশায় খেতমজুর মঙ্গল বাউরির প্রেমের  সম্পর্ক তৈরি হয়। মাস ছয়েকের এই সম্পর্ক । তার জেরে প্রীতির স্বামীর সাথে পারিবারিক অশান্তি ছিল। এরপরই স্বামীকে খুন করার পরিকল্পনা করে প্রেমিক মঙ্গল বাউরী কে সঙ্গে নিয়ে ।

সোমবার রাত্রি আটটা নাগাদ মধুসূদন যখন বাড়ির বাইরে বের হয় তখন প্রীতি এবং তার প্রেমিক মঙ্গল বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে শ্বাসরোধ করে গলার নলি কেটে খুন করে। এদিন ক্যামেরার সামনে দোষ স্বীকার করে অভিযুক্ত মঙ্গল বাউরী।

বছর ছয়েক আগে তাদের বিয়ে হয়। তাদের সাড়ে চার বছরের মেয়ে ও আড়াই বছরের ছেলে রয়েছে।

মৃতের মা কালি বাউরি অভিযুক্তের কঠিন শাস্তির দাবি করেছে। অভিযুক্ত মঙ্গল বাউরির মা বেলমতি বাউরি জানিয়েছে, ছেলের এই সম্পর্কে কথা সে জানতো। বাবা লক্ষণ বাউরির বক্তব্য ছেলে যখন দোষ স্বীকার করেছে তখন তার শাস্তি হোক। লকডাউন এর  মধ্যেই এই ঘটনায় যথেষ্ট চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আপডেট খবর জানতে হাইলাইটস বেঙ্গল ফেসবুক পেজ লাইক করুন।

যে কোনো খবর ও বিজ্ঞাপনের জন্য ফোন করুন:

7908002248