বর্ধমানে বিয়েতে উপহার বস্তা ভর্তি পেঁয়াজ। হৈ চৈ বিয়ে বাড়িতে।

নিউজ ডেস্ক:  বিয়ের অনুষ্ঠানে উপহার হিসেবে বিভিন্ন জিনিসের পাশাপাশি অনেকে সোনার অলঙ্কারও উপহার দেন। কিন্তু পেঁয়াজ উপহার শুনেছেন কখনো! হ্যাঁ, এমনটাই ঘটলো বর্ধমানের একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে। কনেকে উপহার দেওয়া হলো ৩০ কেজি পেঁয়াজ। সোনার সমান মূল্যবান পেঁয়াজ- এমন ভাবনা থেকেই এই অভিনব উপহার বলে জানিয়েছেন কনের বন্ধুরা।

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি নিয়ে বিভিন্ন ছবি আর মন্তব্যে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। তবে এবার এক অভিনব ঘটনা ঘটলো পেঁয়াজ কে নিয়ে। বিয়ের অনুষ্ঠানে পেঁয়াজ উপহার দিলেন কনের বন্ধুরা।

পূর্ব বর্ধমানের রাজগঞ্জের সঙ্গীতা কুন্ডুর সঙ্গে আলমগঞ্জের সুভম রায়ের বিয়ে। বর্ধমানের দিঘিরপুল এলাকায় একটি অনুষ্ঠান বাড়িতে ছিল এই বিয়ের অনুষ্ঠান।
সেখানেই সঙ্গীতা রায়ের বিয়ের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান চলছিল। আর সেই সময় হঠাৎই পাত্রীর বন্ধুরা ঝুড়িতে করে এক ঝুড়ি পেঁয়াজ নিয়ে হাজির। সঙ্গীতাকে উপহার হিসাবে তার হাতে তুলে দেওয়া হয় সেই পেঁয়াজ।

তারা জানান, তারা বস্তায় 30 কেজি পেঁয়াজ কেনে। তারমধ্যে এখন ঝুড়িতে করে অল্প পেঁয়াজ উপহার হিসাবে হাতে তুলে দিলেন। আর এই ঘটনা দেখে বাড়িতে উপস্থিত অতিথি আত্মীয়-স্বজনরা সকলেই অবাক। এই উপহার দেখতে ভিড় জমে যায়।

আপডেট খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পেজ লাইক করুন।

এরকম উদ্যোগে সকলেই খুশি। বন্ধুদের মধ্যে জয়ন্ত আচার্য, পূজা রাজবংশী, কপিল কুমার কুন্ডু, ভোলানাথ রাজবংশীরা বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ার সোনার সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে পেঁয়াজকে। তাই আমরা আলোচনা করে পেঁয়াজ উপহার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিই।

কনে সঙ্গীতাও ভীষণ খুশি। তিনি বলেন বিয়েতে এমন উপহার পাবো স্বপ্নেও ভাবিনি। খুব ভালো লাগছে বন্ধুদের এই নতুন ভাবনায়।

বর্ধমানের এই পেঁয়াজ উপহারের ছবি এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।