শোনা যায় নিজেই আবির্ভাব হয়েছিলেন বর্ধমানেশ্বর। ক্লিক করে পড়ুন সেই কাহিনী

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  সময়টা ১৯৭২ সাল। জানা গেছে,  বর্ধমানের আলমগঞ্জের কিছু মানুষ ধান জমি কাটার কাজ করছিলেন। হঠাৎ মাটির নিচ থেকে একটি বিশাল শিবলিঙ্গ মূর্তি উদ্ধার হয়। কষ্টি পাথরের এই মূর্তির ওজন প্রায় ১৩ টন। উচ্চতা ৬ ফুট, গৌরীপট্ট ১৮ ফুট, পরিধি ১৬ ফুট। গবেষকদের ধারণা এটি খ্রীঃ ৭ম বা ৮ম শতকের। অথাৎ কুষাণ যুগের। এই শিবলিঙ্গ এখানে প্রতিষ্ঠা করে ভক্তিভরে শুরু হয় পুজা আর্চনা। লোকমুখে ছড়িয়ে পড়ে বাবা  বর্ধমানেশ্বরের মাহাত্ম।

৪৭ তম আবির্ভাব দিবসে কয়েক হাজার ভক্ত সমাগম হয় মন্দির প্রাঙ্গণে। এদিন সকালে কাটোয়ার গঙ্গা থেকে জল নিয়ে  পায়ে হেঁটে বর্ধমান আসেন পুর্নাথীরা।  এবং আলমগঞ্জে গিয়ে বাবার মাথায় জল ঢালে তারা।  বর্ধমানেশ্বরের এই উৎসব ঘিরে  বিরাট উন্মাদনা। আনন্দে মেতে ওঠেন মানুষজন। শুধু বর্ধমান নয় অন্যান্য জেলা থেকেও মানুষজন ভিড় জমান এদিন।

 

*** ‘হাইলাইস বেঙ্গলএর নিউজ আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ Like  করুন।

আপনি কি কবিতা বা গল্প লেখেন? পাঠান আমাদের। ‘হাইলাইস বেঙ্গল’’ এর বিশেষ বিভাগ ‘আপনার লেখা’ তে প্রকাশিত হবে। আপনার লেখা পৌঁছে যাবে বিশ্বের দরবারে। লেখা পাঠান এই ই-মেলে- highlightsbengal.news@gmail.com

উদ্যোগপতি,  জীবন সংগ্রাম, কঠিন লড়াই, সাফল্য, বিশেষ কৃতিত্ব সংক্রান্ত কাহিনী এই বিভাগে প্রকাশ করা হবে। এই ধরনের গুণী মানুষদের কৃতিত্ব বিশ্বের  কাছে তুলে ধরতে চাই আমরা। আপনার নজরে এই খবর থাকলে জানান এই নম্বরে- ৭৯০৮০০২২৪৮

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনের সেরা মাধ্যম ‘হাইলাইস বেঙ্গল’ বিজ্ঞাপনের জন্য  ফোনে করুন- ৯৯৩৩১০৬৯০৪, ৭৯০৮০০২২৪৮\