তৃনমূল বিধায়ক খুনে চাঞ্চল্যকর তথ্য।ক্লিক করে দেখুন।

নিউজ ডেক্স:  তৃনমূল বিধায়ককে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে এলাকায় অসংখ্য মানুষ। শ্রদ্ধা জানাতে এলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অনুব্রত মণ্ডল। নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তিনি।  ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে সিআইডির প্রতিনিধিদল। পরিবারের সাথে কথা বলেন সিআইডি অফিসাররা। ঘটনায় এখনো পর্যন্ত গ্রেপ্তার ২, গ্রেফতার সুজিত মন্ডল ও কার্তিক মণ্ডল।এফআইআর করা হয়েছে মুকুল রায় সহ চার জনের নামে। এই ঘটনায় সাসপেন্ড করা হয়েছে হাঁসখালি থানার ওসি অনিন্দ্য বসুকে। সাসপেন্ড বিধায়কের দেহরক্ষী প্রভাস মণ্ডল। শনিবার ছুটিতে ছিলেন দেহরক্ষী। তার বিরুদ্ধে শুরু হয়েছে বিভাগীয় তদন্ত। ময়না তদন্তের পর প্রাথমিক রির্পোটে জানা গেছে একটি গুলিতেই বিধায়কের মৃত্যু হয়েছে। এখনো বুলেট হেড পাওয়া যায়নি। উদ্ধার হওয়া আগ্নেয়াস্ত্রটির ফরেন্সিক পরীক্ষা হবে। এদিন এলাকায় তৃনমূলের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ মিছিল বের করা হয়।

শনিবার গুলিবিদ্ধ হয়ে খুন হলেন নাদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস। ভর সন্ধ্যায় জনবহুল এলাকা  মাজদিয়া ফুলবাড়ি এলাকার এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। একটি সরস্বতী পুজোর  অনুষ্ঠান থেকে বেরিয়ে ভিড়ের মধ্যে তাঁকে পয়েন্ট রেঞ্জ থেকে গুলি চালিয়ে পালায় দূষ্কৃতিরা।  পার্থ চট্টোপাধ্যায় বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছেন।  বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, তৃণমূলের গোলমালের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। এলাকায় শোকের ছায়া।

‘হাইলাইস বেঙ্গল’ এর নিউজ আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ Like করুন।

আরও খবর দেখতে google গিয়ে ক্লিক করুন- www.highlightsbengal.com