বর ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী, কনে ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী। তবে উদ্দেশ্য মহান। ক্লিক করে দেখুন

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান, ১৪ আগষ্ট:

বাল্য বিবাহ রোধের বার্তাকে সামনে রেখে কন্যাশ্রী দিবস পালণে ব্রতি হল পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়ার ছাত্রীরা । বুধবার কন্যাশ্রী দিবসের দিনে বিশেষ র‍্যালির আয়োজন করে কাটোয়া মহকুমা প্রশাসন । সেই র‍্যালিতে অংশ নিয়েছিল কাটোয়ার অনেক বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা । তবে সবাইকে ছাড়িয়ে কাটোয়াবাসীর নজর কাড়ে কাশীশ্বরী বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা । তারাই র‍্যালিতে তুলে ধরে নাবালিকার বিয়ে দেওয়া বন্ধ করা ও নারীদের শিক্ষিত হওয়ার বার্তা।

কন্যাশ্রী দিবসের অভিনব র‍্যালিতে বর সেজেছিল কাশীশ্বরী বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী শংকরি দাস । আর কনে সেজেছিল ওই বিদ্যালয়েরই অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী সংগীতা দে। । কন্যাশ্রী দিবসের র‍্যালিতে এই খুদে বর ও কনেকে দেখে কাটোয়া বাসীর অনেকেই থমকে দাঁড়িয়ে পড়েছিলেন । পরে অবশ্য তাঁদের উৎকণ্ঠা দুরকরেন বর ও কনের পেছনে প্ল্যাকার হাতে দাঁড়িয়ে থাকা ছাত্রীরাই । সেই সব প্ল্যাকারে কোনটাতে লেখা ছিল “ লেখাপড়ায় কাটুক ভয় , আঠারোর আগে বিয়ে নয় । ” আবার কোন প্ল্যাকারে লেখা ছিল “ আর নয় বাল্য বিয়ে , এগিয়ে যাব স্বপ্ন নিয়ে ”। সমাজ ও অভিবাবকদের মধ্যে সচেতনতা জাগাতেই কন্যাশ্রী দিবসের দিন অভিনব ভূমিকায় পথে নামা বলে জানিয়েছে কাশীশ্বরী বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা টিউলিপ দাস নন্দী বলেন ,‘ বিদ্যালয়ের কন্যরা শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়ে সঠিক পথের দিশারী হলে তবেই সমাজ উন্নত হবে । এদিনের র‍্যালিতে সেই ভাবনারই জাগ্রত প্রকাশ ঘটিয়েছে আমাদের বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা । ’ কাটোয়া মহকুমা কন্যাশ্রী আধিকারিক প্রশুন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন অভিনব ভূমিকায় র‍্যালিতে অংশ নেওয়া কাশীশ্বরী বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের এদিন পুরস্কৃত করা হয়েছে ।

কাশীশ্বরী বালিকা বিদ্যালয়ে ছাত্রীদের ভাবনার তারিফ করেছেন করেছেন কাটোয়ার বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় । তিনি বলেন ,‘এই ছাত্রীরাই এদিন প্রমান করেদিল তাদের চিন্তা ও মননে রেখাপাত করেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চালুকরা কন্যাশ্রী প্রকল্প। এটাই কন্যাশ্রী প্রকল্পের সার্থকতা । ’