ভোটের মুখে এই পোস্টার ঘিরে বিতর্ক।

পোস্টার ঘিরে সরগরম পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর। গোটা রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন রকম ফ্লেক্স পোস্টার দেখা যাচ্ছে। এবার ভূমিপুত্র প্রার্থী চাই এই ফ্লেক্স দেখা গেছে পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের বিভিন্ন এলাকা। শুধু তাই নয়, রীতিমতো হুমকির সুর রয়েছে এই ফ্লেক্সে। দলনেত্রী ছবি ও তৃণমূলের চিহ্ন দেওয়া এই ফ্লেক্স কারা লাগিয়েছে তা নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চর্চা।

কি লেখা রয়েছে ফ্লেক্স গুলিতে?

‘নেতৃত্বরা সাবধান হন। জামালপুরে ভূমি পুত্র প্রার্থী না হলে ভোটের দিন জামালপুর বাসীরা সাপ লুডো খেলে দেখিয়ে দেবে।’ আরো লেখা রয়েছে, ‘জামালপুর বিধানসভার নাগরিকরা ডিটেনশন ক্যাম্প এর বাসিন্দা নন। তাই বলছি, এখনো সময় আছে। প্রার্থীর নাম ঘোষনার আগে তৃণমূলের নেতারা সাবধান হোন। আবারও যদি বহিরাগত কাউকে জামালপুর বিধানসভার প্রার্থী করা হয় তবে পরিণাম হবে ভয়ংকর। ভোটের দিন সাপলুডু খেলা খেলে দেবে জামালপুরে জনগণ।’

জামালপুরের জনগণ নামাঙ্কিত এই পোস্টার হলেও দলনেত্রী ছবি ও তৃণমূলের চিহ্ন থাকায় তৃণমূলেরই একাংশের হাত রয়েছেই পোস্টার লাগানোর পিছনে এমনটাই মনে করছেন অনেকেই।

২০১১ সালে জামালপুর থেকে জয়ী হন তৃণমূলের উজ্জ্বল প্রামানিক। তিনি বর্ধমান শহরের বাসিন্দা। কিন্তু ২০১৬ সালের নির্বাচনে উজ্জ্বল প্রামানিক বাম প্রার্থী সমর হাজরার কাছে পরাজিত হন। বরাবরই জামালপুরে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান ও উজ্জ্বল প্রামানিক গোষ্ঠীর দ্বন্দ্ব রয়েছে। তাই প্রার্থী ঘোষণার ঠিক আগেই এই পোস্টার ঘিরে রীতিমতো অস্বস্তিতে তৃণমূল জেলা নেতৃত্ব।